১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

নবীনগরে প্রতিপক্ষের হামলায় নৃশংসভাবে ১ ব্যক্তি খুন

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১

নবীনগরের প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে মাহফিলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে এক যুবকের সাথে তর্কাতর্কির জেরে প্রতিপক্ষের হাতে মিলন সরদার (৮০) নামে
এক ব্যক্তিকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। এসময় প্রতিপক্ষের লোকজন ওই বৃদ্ধের চোখ উপড়ে ও জিহ্বা কেটে ফেলে তার মুখ থেতলে দেয়।
রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের গৌরনগর গ্রামে কান্দাপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত মিলন ওই এলাকার মৃত তালেব আলীর ছেলে। এই ঘটনায় আহত হয়েছে ১০জন। গত বছর এই ইউনিয়নেই প্রতিপক্ষের পা কেটে উল্লাসের দেশব্যাপী আলোচিত ঘটে ছিল।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের গৌরনগর গ্রামে আজইরা গোষ্ঠী ও সরকার গোষ্ঠীর মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত নানান বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। তাদের বিরোধের জেরে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে একাধিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার রাতে গ্রামে একটি মাহফিল চলছিল। সেই মাহফিল থেকে ফিরছিলেন সরকার গোষ্ঠীর মিলন সরদার সহ কয়েকজন। পথিমধ্যে আজইরা গোষ্ঠীর লোকজন হামলা করে মিলন সরদার সহ কয়েকজনকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে। এসময় মিলন সরদারের চোখ উপড়ে ফেলা হয় এবং জিহ্বা কেটে ফেলা সহ সমস্ত মুখমণ্ডল থেতলে দেয়। ঘটনাস্থলেই মারা যান মিলন সরদার। আহতদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়।
নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) রুহুল আমিন জানান, তুচ্ছ বিষয়ে পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে মিলন সরদার নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।