১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

নবীনগরে সর্দার মিলন সরকারকে হত্যার ঘটনায় ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১

নবীনগরের সংবাদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের গৌরনগর গ্রামে দুই গোষ্ঠীর পূর্ব বিরোধের জেরে গ্রাম্য সর্দারকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। গত বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১ টার দিকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, জালাল মিয়া (৫২), আলাল মিয়া (৫০), দয়াল শাহ (৩৯), জামাল মিয়া (৪৮), মো. হোসেন মিয়া (৪৮), মাসুদুর রহমান (৩৫), মিজানুর রহমান (৫০), মো. আমির হোসেন (৫০), মঈন উদ্দিন ওরফে মনির মিয়া (৫০), মুহিন উদ্দিন (২৫), মো. কামাল মিয়া (৬০), রজব আলী (৭৫), শাহীন মিয়া (২০) এবং মো. ডালিম মিয়া (৪০)। তারা সকলে জেলার নবীনগর উপজেলার গৌরনগর গ্রামের বাসিন্দা।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে র‍্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্পের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে কোম্পানির অধিনায়ক রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের জানান, উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের গৌরনগর গ্রামে আজইরা বাড়ি ও সরকার বাড়ি নামে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে পূর্বের গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলছিল। এই বিরোধের জের ধরে গত সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টার দিকে ওয়াজ থেকে ফেরার পথে এলাকার গ্রাম্য সর্দার মিলন সরকার (৮০) কে চোখ উপড়ে ফেলে ও জিহবা কেটে নৃশংসভাবে হত্যা করে আজইরা বাড়ির লোকজন।

এ ঘটনার পর ৫৫ জনকে আসামি করে নবীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়েরে পর গত বুধবার রাত ১১টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে জেলার সদর উপজেলার থলিয়ারায় এলাকার মুসা মিয়ার বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামিদেরকে নবীনগর থানায় হস্তান্তর করার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।